করোনাভাইরাস প্রতিরোধে সরকারের কোনো পরিকল্পনা বা রোডম্যাপ নেই : মির্জা ফখরুল

Raja SaimonRaja Saimon
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  05:37 PM, 28 June 2020

নিজস্ব প্রতিবেদক :: বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, স্বাস্থ্য অধিদপ্তর যে একটা গাইডলাইন দেবে, সেই গাইডলাইনও তারা দিতে পারেনি। গোটা দেশে কোভিড-১৯ মোকাবিলার জন্য যে একটা রোডম্যাপ, একটা প্রতিরোধ পরিকল্পনা, তার সবটাই অনুপস্থিত এখানে।

আজ রোববার বিকেলে রাজধানীর উত্তরার বাসা থেকে অনলাইনে জাতীয়তাবাদী হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসক দল আয়োজিত ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্পের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মির্জা ফখরুল এই মন্তব্য করেন।

মির্জা ফখরুল। তিনি বলেন, গোটা হেলথ সিস্টেম একেবারে ভেঙে পড়েছে। একেবারেই লেজেগোবরে অবস্থা হয়ে গেছে। সরকার স্বাস্থ্য খাতকে চরম অবহেলা করার জন্য, কোভিড-১৯-এর পর থেকে সঠিক সিদ্ধান্ত না নেওয়ার কারণে, ভ্রান্ত নীতির কারণে আজকে দেশে সবচেয়ে করুণ অবস্থা সৃষ্টি হয়েছে।

কোভিড-১৯ রোগের চিকিৎসার হাসপাতালগুলোয় শয্যা খালি থাকাকে ‘অ্যালার্মিং’ বলে মন্তব্য করেন বিএনপির মহাসচিব। তিনি বলেন, হাসপাতালগুলোয় যেসব শয্যা চিহ্নিত করা হয়েছিল কোভিড-১৯ রোগীদের জন্য, সেই বেডগুলো খালি পড়ে থাকছে। কারণ, মানুষ হাসপাতালে যেতে চাইছে না। হাসপাতালের যে ব্যবস্থা, সেই ব্যবস্থায় কেউ আস্থা আনতে পারছে না। বেশির ভাগ মানুষ ঘরের মধ্যে চিকিৎসা নিচ্ছে, ঘরের মধ্যে তারা প্রাণ দিচ্ছে।

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘আপনারা দেখেছেন, কয়েক দিন আগে চীনা বিশেষজ্ঞরা এসেছিলেন। তাঁরা এসে ঠিক একই কথা বলেছেন যে বাংলাদেশে সবকিছু এলোমেলো।’

বিএনপির মহাসচিব বলেন, এখানে কারও কোনো নিয়ন্ত্রণ নেই। সরকারের তরফ থেকে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর আছে। তারা একেক সময় একেক রকম কথা বলছে।

করোনা মোকাবিলায় সরকারের দেওয়া প্যাকেজ প্রণোদনার প্রসঙ্গে মির্জা ফখরুল বলেন, সেটা ছিল মূলত ব্যাংকঋণ। এই মুহূর্তে সরকারের বড় যে বিষয়টা গুরুত্ব দেওয়া উচিত ছিল, সেটা হলো মানবিক দিক। এখানে যে মানুষগুলো আজ কর্মহীন হয়ে পড়ছে বা কাজ পাচ্ছে না, তাদের ন্যূনতম বেঁচে থাকার জন্য যে প্রয়োজন, সেই প্রয়োজনের টাকাও সরকার তাদের কাছে পৌঁছাতে পারেনি।

বিএনপির পক্ষ থেকে স্বল্প, মধ্য ও দীর্ঘমেয়াদি প্যাকেজ প্রস্তাবের কথা উল্লেখ করে তাতে সরকার কোনো সাড়া না দেওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন মির্জা ফখরুল।

আপনার মতামত লিখুন :