‘কড়া জবাব দেওয়ার জন্য সব ধরনের স্বাধীনতা ভারতীয় বাহিনীকে দেওয়া হয়েছে’

Raja SaimonRaja Saimon
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  04:42 PM, 22 June 2020

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :: ভারতের সঙ্গে চীনের সীমান্ত উত্তেজনা এখন চরমে। এই পরিস্থিতিতে চীন কোনো আক্রমণাত্মক পদক্ষেপ নিলে তার কড়া জবাব দেওয়ার জন্য সব ধরনের স্বাধীনতা ভারতীয় বাহিনীকে দেওয়া হয়েছে। ভারতের দিল্লিভিত্তিক বার্তা সংস্থা পিটিআইয়ের খবরে গতকাল রোববার এই তথ্য জানানো হয়েছে। রাশিয়ায় যাওয়ার আগে চীন পরিস্থিতি নিয়ে উচ্চপর্যায়ের বৈঠক থেকে এই নির্দেশ দিয়েছেন ভারতের প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং।

আজ সোমবার রাশিয়া সফরে যাবেন রাজনাথ সিং। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে জার্মানির বিরুদ্ধে সোভিয়েত ইউনিয়নের জয়ের ৭৫ বছর পূর্তি উপলক্ষে একটি কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠিত হবে। এতে যোগ দেবেন রাজনাথ সিং। এর আগে গতকাল লাদাখে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখায় (এলএসি) চলমান উত্তেজনা পরিস্থিতি নিয়ে চিফ অব ডিফেন্স স্টাফ বিপিন রাওয়াতের সঙ্গে বৈঠক করেন তিনি। বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন- সেনাবাহিনীর প্রধান এম এম নারবানে, নৌবাহিনীর প্রধান অ্যাডমিরাল করমবীর সিং ও বিমানবাহিনীর প্রধান আর কে এস ভাদুরিয়া।

ভারত যে চীনের যেকোনো পদক্ষেপের জবাব দেওয়ার প্রস্তুতি নিয়েছে, তা আগেই ইঙ্গিত দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তিনি বলেছেন, সেনাবাহিনীকে সিদ্ধান্ত নিতে হবে এবং ঘটনাস্থলের পরিস্থিতি বুঝে তাদেরই সিদ্ধান্ত নিতে হবে। আর এই জবাব দেওয়ার জন্য প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখায় নিজেদের শক্তি বাড়িয়েছে ভারতের সেনা ও বিমানবাহিনী। ভারতের সঙ্গে চীনের সীমান্ত রয়েছে প্রায় সাড়ে তিন হাজার কিলোমিটার। এই পুরো সীমান্তেই তীক্ষ্ণ নজর রাখার নির্দেশ দিয়েছেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী।

সহযোগিতা করতে চান ট্রাম্প

চীন ও ভারতের মধ্যে চলমান উত্তেজনা হ্রাসে সহযোগিতার হাত বাড়িয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তিনি গত শনিবার বলেছেন, সাহায্য করার জন্য যুক্তরাষ্ট্র দুই পক্ষের সঙ্গেই কথা বলছে।

ওকলাহোমায় নিজের নির্বাচনী প্রচারে যাওয়ার আগে হোয়াইট হাউসে এ নিয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন ট্রাম্প। এ সময় তিনি বলেন, ‘এটা খুবই কঠিন সময়। আমরা চীনের সঙ্গে কথা বলছি, ভারতের সঙ্গে কথা বলছি। এই দুই দেশই বড় সমস্যায় পড়েছে। দুই পক্ষ সংঘাতে জড়িয়েছে, আমরা চেষ্টা করব তাদের সাহায্য করার।’

এলএসিতে স্থাপনা নির্মাণ বাড়িয়েছে চীন

এদিকে উত্তেজনার মধ্যেই সীমান্তবর্তী এলাকায় স্থাপনা নির্মাণের কাজ বাড়িয়েছে চীন। এনডিটিভির খবরে বলা হয়েছে, ৯ থেকে ১৬ জুনের মধ্যে চীনের সেনারা লাদাখের নিয়ন্ত্রণরেখা এলাকায় ২০০টি ট্রাক এনেছে। এ ছাড়া চার চাকার আরও কিছু ভারী যান এবং বুলডোজার এনেছে। স্যাটেলাইটের ছবি বিশ্লেষণ করে এসব তথ্য জানিয়েছে গণমাধ্যম।

আপনার মতামত লিখুন :