জনগণের নিরাপত্তা বিধানের জন্যই গণতন্ত্রকে ফিরিয়ে আনতে হবে : মির্জা ফখরুল

Raja SaimonRaja Saimon
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  05:50 PM, 31 August 2020

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন- দেশ আজ দুঃশাসনকবলিত। এর ওপর করোনা মহামারির আক্রমণে জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে আতঙ্ক ও ভয়ের মধ্যে দিনাতিপাত করছে দেশের মানুষ। গুম-খুনের আতঙ্ক মানুষের নিত্যসঙ্গী। আইন, বিচার ও প্রশাসনকে সরকার কবজার মধ্যে রাখার চেষ্টায় মরিয়া। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে বেআইনি কাজ করতে বাধ্য করা হচ্ছে। ফলে, সমাজে দেখা দিয়েছে বিপজ্জনক বিশৃঙ্খলা। সরকার যেখানে জনগণের প্রতিপক্ষ, সেখানে মানুষের জানমালের কোনো নিরাপত্তা থাকতে পারে না। জনগণের নিরাপত্তা বিধানের জন্যই গণতন্ত্রকে ফিরিয়ে আনতে হবে।

বিএনপির ৪২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আজ সোমবার দেওয়া এক বাণীতে মির্জা ফখরুল এসব কথা বলেন। আগামীকাল ১ সেপ্টেম্বর বিএনপির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী। ১৯৭৮ সালে সাবেক সেনাপ্রধান জিয়াউর রহমানের নেতৃত্বে বিএনপি প্রতিষ্ঠিত হয়।

মির্জা ফখরুল বলেন- বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া এবং দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের ওপর জুলুম-নির্যাতন চালিয়ে হয়রানির খড়্গ ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে। খালেদা জিয়া প্রতিহিংসার শিকার। খালেদাকে গণতন্ত্রের প্রতীক এবং জনগণের নাগরিক ও বাক্‌-ব্যক্তিস্বাধীনতার পক্ষে প্রধান কণ্ঠস্বর বলে উল্লেখ করেন ফখরুল। বিএনপির ৪২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর এই দিনে মির্জা ফখরুল দেশবাসীকে বিএনপির পতাকাতলে ঐক্যবদ্ধ থাকার আহ্বান জানান।

মির্জা ফখরুল তাঁর বাণীতে জিয়াউর রহমানসহ বিএনপির যাঁরা মৃত্যুবরণ করেছেন, তাঁদের প্রতি শ্রদ্ধা জানান। এ ছাড়া নেতা-কর্মীসহ সবাইকে শুভেচ্ছা জানিয়ে বলেন, ‘বিএনপি দেশ ও মানুষের উন্নয়ন এবং বিশ্বের সব রাষ্ট্রের সঙ্গে সমমর্যাদার ভিত্তিতে সৌহার্দ্য ও বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক স্থাপনে নিরলস কাজ করে যাচ্ছে। বিএনপির ৪২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর এই মহান দিনে দলের সব পর্যায়ের নেতা-কর্মীদের দলকে আরও গতিশীল করার ক্ষেত্রে মনেপ্রাণে কাজ করার জন্য প্রস্তুত থাকার আহ্বান জানাচ্ছি। বর্তমান দুঃসময়ে জনগণকে সংগঠিত করার কোন বিকল্প নেই।

আপনার মতামত লিখুন :