রমজানের আগেই সিলেটের বাজারে বাড়ছে পেঁয়াজসহ নিত্যপণ্যের দাম

সিলেটের আলোসিলেটের আলো
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  March 14, 2021

পবিত্র রমজানের এক মাস আগে থেকেই সিলেটে বাড়তে শুরু করেছে পেঁয়াজসহ নিত্যপণ্যের দাম। সেই সঙ্গে বাড়ছে শাক-সবজির দামও।

সপ্তাহের ব্যবধানে নতুন পেঁয়াজের দাম কেজিপ্রতি বেড়েছে ১০ টাকা। আলু ও চিনির দাম বেড়েছে কেজিপ্রতি দু-তিন টাকা। একই অবস্থা চাল ও সয়াবিন তেলের বাজারে।

রমজান যত ঘনিয়ে আসবে সিলেটের নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের বাজার আরও অস্থিতিশীল হয়ে উঠবে বলে ধারণা করছেন ভোক্তা ও সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ীরা। তারা বলছেন, এখন থেকে পাইকারি বাজার মনিটরিং না বাড়ালে রমজানে বাজারের লাগাম ধরে রাখা কষ্টকর হবে।

শনিবার (১৩ মার্চ) সিলেটের কয়েকটি বাজার ঘুরে দেখা যায়, চালের দাম কেজিপ্রতি দু-তিন টাকা পর্যন্ত বেড়েছে। ব্যবসায়ীরা বলছেন, চাল আমদানির ওপর শুল্ক কমানোর ঘোষণার পর দাম কমার কথা থাকলেও উল্টো বাড়তির দিকে।

গত সপ্তাহেও নতুন দেশি পেঁয়াজ ২৮ টাকা কেজিপ্রতি বিক্রি হলেও এখন তা ৩৮ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। এলসির ইন্ডিয়ান ৪৮-৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। চায়না পেঁয়াজ সর্বনিম্ন ২০-২২ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে।

নগরের কালীঘাটে পাইকারি আড়তেই চায়না পেঁয়াজ সর্বনিম্ন ১৯ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। দেশি পেঁয়াজ পাইকারি বাজারে ৩৫-৩৬ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। যা খোলাবাজারে এসে ৩৮-৪০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। খুচরা বাজারে চায়না পেঁয়াজ ২২ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

সবজির বাজার ঘুরে দেখা গেছে, গত সপ্তাহের তুলনায় শিমের দাম কেজিতে বেড়েছে পাঁচ টাকা। বর্তমানে প্রতি কেজি শিম বিক্রি হচ্ছে ২০-৩০ টাকায়। অথচ গত সপ্তাহে এই শিম বিক্রি হয়েছে ১৫-২৫ টাকায়।

ফুলকপি ও বাঁধাকপির পিস বিক্রি হচ্ছে ২৫-৩০ টাকায়। মুলা ১৫-১৮ টাকা কেজিতে পাওয়া যাচ্ছে। আর ৩০-৪০ টাকার মধ্যে পাওয়া যাচ্ছে মধ্যম আকারের লাউ। এদিকে বেগুনের কেজি ৩০-৩৫ টাকায়, ভটভটি (লুবিয়া) প্রতি কেজি বিক্রি হচ্ছে ৩৫-৪০ টাকা কেজি দরে।

বেশিরভাগ সবজির দাম বাড়লেও গত সপ্তাহের তুলনায় একটু কম দামে বিক্রি হচ্ছে শিমের বিচি। শিমের বিচির কেজি বর্তমানে পাওয়া যাচ্ছে ৭০-৭৫ টাকায়। যা গত সপ্তাহের বিক্রি হয়েছে ৮০-৯০ টাকা দরে।

এদিকে চালের মতোই বেশি দামে বিক্রি হচ্ছে তেল এক লিটার বোতলজাত সয়াবিন তেল বিক্রি হচ্ছে ১৩৫-১৩৭ টাকায়। যা গেল সপ্তাহে দুই টাকা কম ছিল। পাঁচ লিটারের এক বোতল তেল বিক্রি হচ্ছে ৬১০-৬২০ টাকা দরে।

আপনার মতামত লিখুন :